Stadia এর জন্য আর গেমস তৈরি করবে না গুগল

সম্প্রতি জানা গেছে গুগল আর Stadia এর জন্য গেমস তৈরি করবে না। জানা গেছে এখন তারা Stadia এর পরিবর্তে থার্ডপার্টি ডেভেলপারদের উপর নির্ভর করবে।

গুগল Stadia Gaming & Entertainment Studios বন্ধ করে দিচ্ছে। গুগল তাদের The Keyword ব্লগে নিশ্চিত করেছে, তারা ফাইনালি Stadia Gaming & Entertainment Studios, গেম উৎপাদনের জন্য বন্ধ করে দিয়েছে।

এখানে বলে রাখা ভাল Stadia হচ্ছে গুগলের ডেভেলপ করা এবং অপারেট করা একটি ক্লাউড গেমিং সার্ভিস। Stadia এর উল্লেখযোগ্য কিছু গেম হচ্ছে, Gylt, Doom Eternal, Cyberpunk, এবং Destiny 2। গুগল প্রথমবারের মত যখন Stadia ক্লাউড গেমিং প্ল্যাটফর্ম লঞ্চ করেছিল, তখন মনে হচ্ছিল গেমিং ইন্ডাস্ট্রি হয়তো ঝুঁকিতে পড়ে যাবে। মানুষের গেম খেলার ধরন হয়তো পরিবর্তন হয়ে যাবে। গুগল পরিকল্পনা করেছিল SG&E বা Stadia Games and Entertainment এর অধীনে অরিজিনাল গেম তৈরি করবে।

গুগল স্টাডিয়ার ভাইস প্রেসিডেন্ট (ভিপি) এবং জেনারেল ম্যানেজার, ফিল হ্যারিসন স্টুডিওটি বন্ধ করার কারণ হিসেবে বলেছেন, “গ্রাউন্ড আপ থেকে সেরা-ইন-ক্লাস গেম তৈরি করতে অনেক বছর সময় লাগে এবং উল্লেখযোগ্য বিনিয়োগ লাগে এবং ব্যয়টি তাত্পর্যপূর্ণভাবে বাড়ছে। ”

সুতরাং, মনে হচ্ছে যে কোন বড় গেমিং প্ল্যাটফর্মের ভিপি এবং জিএম আগে বুঝতে পারেনি যে AAA শিরোনামের মত গেম ডেভেলপ করা এবং প্রকাশ করা কতটা ব্যয়বহুল।

তিনি আরও বলেছেন, Stadia এর প্রযুক্তি এবং আমাদের বিজনেস পার্টনারশিপের প্রেক্ষিতে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, এক্সক্লুসিভ কন্টেন্ট নিয়ে আসার জন্য আমরা আর আমাদের ইন্টারনাল ডেভেলপ টিম SG&E তে বিনিয়োগ করব না।

যেহেতু গুগল তাদের Stadia স্টুডিও এর আন্ডারে আর কোন গেম আনবে না সুতরাং Stadia এর এখন কি হবে? গুগলের ব্লগ Post অনুযায়ী বেশি কিছু হবে না। সার্ভিসটি যেমন ছিল তেমনই থাকবে। বলা যায়, উল্লেখযোগ্য ইম্প্রুভ, এবং গেম তৈরির জন্য, গুগল এই সার্ভিসে আর নগদ অর্থ বিনিয়োগ করবে না। একই সাথে যারা আগে Stadia তে খেলতো তারা এখনো খেলতে পারবে এবং পুরোপুরি আগের মতই সার্ভিসটি ব্যবহার করতে পারবে।

গুগলের এমন সিদ্ধান্তে তাদের বিজনেসে কি প্রভাব পড়তে পারে এটি নিশ্চিত নয় তবে তাদের প্রয়োজন পরিবর্তনও হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *