যেভাবে জিমেইল অ্যাকাউন্ট চিরতরে ডিলিট করা যায়

ইন্টারনেট ব্যবহার করেন না এমন লোক পাওয়া আজকাল বড় মুশকিল। ইন্টানেটের এই যুগে কেই বা ইন্টারনেট ছাড়া থাকতে চায়? ইন্টারনেট ব্যবহার কারার জন্য প্রয়োজন হয় জিমেইল অ্যাকাউন্ট বা গুগল অ্যকাউন্ট এর। অনেক ক্ষেত্রেই এর প্রয়োজন পরে না। তবে ইন্টারনেটের গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো করার জন্য প্রয়োজন হয় জিমেইল অ্যাকাউন্ট এর।

কখনো কখনো আমরা তথ্য সংগ্রহের জন্য নানা রকম ওয়েবসাইটে গিয়ে থাকি। যখন আমরা সেখান থেকে কোনো তথ্য সংগ্রহ করতে চাই তখন সে ওয়েবসাইটে জিমেইল দিয়ে লগইন করতে বলা হয়ে থাকে। সে ক্ষেত্রে আমরা কি করি? আমারা নিজের ব্যাক্তিগত জিমেইন অ্যাকাউন্টি সুরক্ষায় থাকার কথা চিন্তা করে সে জিমেইল দিয়ে লগইন করি না। সেখানে লগইন করার জন্য নতুন একটি জিমেইল অ্যাকাউন্ট তৈরি করে থাকি। যা পরবর্তীতে আর কোনো কাজে লাগে না। এমনটা প্রায় সবাই করে থাকে। কেননা তাতে কোনো সমস্যা হয় না।

তবে আমরা যখন পুনরায় জিমেইল তৈরি করতে যাই তখন দেখায় যে, এই ফোন নাম্বার দিয়ে আগে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করা হয়েছে এখন অন্য নাম্বার ব্যবহার করুন। তখন প্রয়োজন পরে ওই অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার।

আমরা অনেকেই জানিনা কিভাবে জিমেইল অ্যাকাউন্ট চিরতরে ডিলিট করতে হয়। তো যারা জানে না তাদের জন্য আজকের এই আর্টিকেলটি। আমরা আজকে দেখাবো কিভাবে একটি জিমেইল অ্যাকাউন্টি চিরতরে ডিলিট করতে হয়। ডিলিট কারার জন্য নিচের ধাপগুলো লক্ষ করুন:

    • প্রথমেই আপনকে একটি ব্রাউজার ওপেন করতে হবে।
    • তারপর গুগলে সার্চ দিন মাই অ্যকাউন্ট লিখে। গুগল এর ফাস্ট পেজ থেকে Google Account এ ক্লিক করুন।
    • তারপর যে পেজটি ওপেন হবে সেখান থেকে Date & Personalisation এ ক্লিক করুন।
    • এবার একটু নিচের দিকে স্ক্রোল করে সেখান থেকে Delete a service or your account এ ক্লিক করুন।
    • যে পেজটি আসবে সেখান থেকে Date your account এ ক্লিক করুন।
    • এখন আপনার জিমেইল অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ডটি চাইবে। সেখানে আপনার জিমেইলের পাসওয়ার্ডটি দিয়ে Sign in এ ক্লিক করুন।
    • লগইন করার পর যে পেজটি ওপেন হবে, সে পেজটি একটু স্ক্রোল করে নিচের দিকে আসলে দু‘টি অপশন পাবেন। সে অপশন গুলোতে টিক দিয়ে DELETE ACCOUNT এ ক্লিক করুন।

কাজ শেষ! এবার আপনার অ্যাকাউন্টি ডিলিট হয়ে গেছে। আসা করি বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন। যদি বুঝতে সমস্যা হয় তাহলে আমাদের ফেসবুক ফান পেইজে মেসেজ করতে পারেন এবং আর্টিকেলটি ভালো লেগে থাকলে অবশ্যই শেয়ার করবেন।

প্রযুক্তি সম্পর্কে আরো জানতে ব্লগটি ভিজিট করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *